মফস্বলের চাকরী

মফস্বলের চাকরী
(শোনা গল্প)

ডাঃ সাদেকুল ইসলাম তালুকদার
অনেক অনেক দিন আগের কথা । এক লোক দারোগা পদে চাকরী করতেন। তদন্তের কাজে প্রতিদিন মফস্বলে বা গ্রামে যেতে তো। তিনি খুব ঘুষ খোর ছিলেন। মফস্বলে গিয়ে আসামী ধরে ঘুষ নিয়ে ছেড়ে দিতেন বেতনের ও ঘুষের টাকা তিনি প্রতিসন্ধায় তার স্ত্রীর হাতে তুলে দিতেন । তার স্ত্রী সাঁজ গোঁজ ও গহনা ভালবাসতেন । তিনি টাকা পেলেই খুশী। টাকা নেয়ার সময় তিনি জিজ্ঞেস করতেন “এটা কীসের টাকা ?” লোকটা উত্তর দিতেন “এটা বেতনের, এটা মফস্বলের ।” স্ত্রী লক্ষ্য করতেন যে বেতনের টাকা মাসে মাত্র একবার পাওয়া যায় । আর মফস্বলের টাকা একটু কম হলেও প্রতিদিন পাওয়া যায় । যোগ করলে মফস্বলের টাকা অনেক বেশী ।
একদিন সন্ধায় বাসায় ফিরে লোকটা বিমর্ষ হয়ে বসে রইলেন ।
স্ত্রী জিজ্ঞেস করলেন
– কি হয়েছে ?
– চাকরিটা চলে গেছে । আর বেতন পাব না।
– কোন চাকরিটা চলে গেছে ?
– সরকারী চাকরীটা চলে গেছে ।
– মফস্বলের চাকরী থাকলেই হল ।
– সরকারী চাকরী না থাকলে মফস্বলের চাকরী থাকে না, প্রিয়তমা ।

[প্রফেসর এখলাছুর রহমান স্যার থেকে আনুমানিক ২০ বছর আগে শোনা গল্প]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *