ভন্ডগিরি

(ছোট ছোট সংলাপ)
-তোমার নাম কি?
-লাভলী।
-তুমি কোন ক্লাসে পড়?
-আমি ক্লাস ফাইভে পড়ি।
-তোনাদের স্কুল গ্রামে না শহরে?
-গ্রামে।
-তোমাদের ক্লাসে কতজন ছাত্রছাত্রী?
-এই, প্রায় একশো জন হবে।
-তোমাদের ক্লাসে ফার্স্ট কে?
-আমি।
-সেকেন্ড ছেলে না মেয়ে?
-মেয়ে।
-থার্ড ছেলে না মেয়ে?
-মেয়ে।
-ফোর্থ?
-মেয়ে। ফিফথও মেয়ে। সিক্সথ হল ছেলে।
-মেয়েরাই দেখছি ভাল।
-আমাদের ক্লাসে মেয়েরাই পড়াশুনায় বেশী ভাল। সব ক্লাসেই মেয়েরা ভাল করে।
-ক্লাসে ছেলে বেশী না মেয়ে বেশী?
-মেয়ে বেশী।
-তোমাদের গ্রামে ছেলে বেশী না মেয়ে বেশী?
-ছেলে মেয়ে সমান সমান।
-তাহলে স্কুলে ছেলে কম কেন?
-তারা স্কুলে যায় না।
-যারা স্কুলে যায় না তারা কি করে?
-ভন্ডগিরি করে।

(মেয়ের মাকে)
-আপনার মেয়ে তো ভাল ছাত্রী। পড়াশুনা করিয়ে কি বানাবেন?
-ডাক্তর ইঞ্জিনিয়ার বানামু।
-ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার বানানোর পর তো বিয়ে দিতে হবে। কি রকম ছেলের কাছে বিয়ে দিবেন?
-ডাক্তর ইঞ্জিনিয়ার দেইখাই বিয়া দিমু।
-আপনাদের গ্রামের ছেলেরা তো তেমন লেখাপড়া করছে না। তারা তো ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার হতে পারবে না। ছেলে পাবেন কই?
-শহরের পোলা দেইখা বিয়া দিমু।
-শহরের ছেলেরাও তো এখন তেমন লেখাপড়া করছে না।
-তাইলে কিবা করবাম?
[৯/৩/২০১৮]

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *